CBI মিথ্যে তথ্য দিয়েছে, দাবি লুথরার

© এই সময় এর দ্বারা সরবরাহকৃত

এই সময়:

নারদ মামলায় অভিষেক মনু সিঙ্ঘভির পর এ বার অভিযুক্ত নেতা-মন্ত্রীদের পক্ষে সওয়াল শুরু করলেন তাঁদের আর এক আইনজীবী সিদ্ধার্থ লুথরা। বৃহস্পতিবার নারদ মামলায় মদন মিত্রের তরফে কলকাতা হাইকোর্টে পাঁচ বিচারপতির বেঞ্চে হলফনামা জমা দিয়ে লুথরা অভিযোগ তোলেন, CBI লাগাতার মিথ্যা তথ্য দিচ্ছে।

CBI কতটা মিথ্যা তথ্য দিয়ে মামলা সাজিয়েছে, সেই ব্যাপারে যুক্তি দিতে গিয়ে লুথরা বলেন, 'অ্যারেস্ট মেমো অনুযায়ী, নেতা-মন্ত্রীদের নিজাম প্যালেস থেকে গ্রেফতার করা হয়ছে। অথচ সিবিআইয়ের হলফনামা অনুযায়ী, ১৭ মে সকালে তাঁদের বাড়ি থেকেই গ্রেফতার করা হয়েছে।' তখন ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি রাজেশ বিন্দলের প্রশ্ন, 'তা হলেই কি বিক্ষোভের অধিকার জন্মে যায়?' লুথরার জবাব, 'গ্রেফতার নিয়ে CBI যা করেছে, তা সাংবিধানিক নিয়মের সঙ্গেই প্রতারণা। তার পরেও তারা নীতি-নৈতিকতার কথা বলছে কী ভাবে?'

83364850

বিধায়ক মদন মিত্রের গ্রেফতারিতে যে অনিয়ম হয়েছে, সেই ব্যাপারে আইনজীবী সিদ্ধার্থ লুথরা একের পর এক অভিযোগ তুলতে থাকায় এক সময়ে বিচারপতি সৌমেন সেন প্রশ্ন করেন, 'গ্রেফতারির বৈধতা কি এই মামলার ক্ষেত্রে প্রাসঙ্গিক?' সিবিআইয়ের দাবি, বিক্ষোভের কারণে গত ১৭ মে তারা অভিযুক্তদের আদালতে নিয়ে যেতে পারেনি। লুথরার যুক্তি, বিক্ষোভের কারণ দেখালেও আসলে সিবিআইয়ের এই গ্রেফতারি অতিরঞ্জিত ছিল, আইন এর অনুমতি দেয় না। সেই জন্যই বিশেষ CBI আদালত চার অভিযুক্ত নেতা-মন্ত্রীকে জামিন দিয়েছিল বলে লুথরার বক্তব্য।

83432422

কোভিড প্রোটোকল না-মেনে মদন মিত্রকে CBI গ্রেফতার করতে গিয়েছিল, আইনজীবী লুথরা এ দিন এমন অভিযোগও তুলেছেন। তাঁর অভিযোগ, তখন সদ্য করোনা থেকে সেরে উঠেছেন মদন মিত্র। তার মধ্যেই সকালে২০টি গাড়িতে বিশাল বাহিনী নিয়ে তাঁর বাড়িতে গিয়েছিল সিবিআই। অথচ তার আগে মদন মিত্রকে যখনই তদন্তে সহযোগিতার কথা বলা হয়েছে, তখন তিনি তা করেছেন। তাঁকে গ্রেফতার করার দরকার নেই বলে আগে মন্তব্যও করেছিল সিবিআই। তাহলে ৭ মে (ওই দিন CBI জনপ্রতিনিধিদের গ্রেফতারির জন্য রাজ্যপালের অনুমতি চেয়ে আবেদন করে)-এর পর কী এমন হল যে, হঠাৎ তাঁদের গ্রেফতার করতে হল, প্রশ্ন লুথরার। যদিও বিচারপতি হরিশ ট্যান্ডনের বক্তব্য, 'এই বিষয়গুলো জামিনের সঙ্গে যুক্ত। আমরা জামিনের সূক্ষ্ম বিচার করছি না। জামিনের বিষয়ে সিবিআইয়ের বিশেষ আদালত সিদ্ধান্ত নিতে পারে।' আগামী মঙ্গলবার, ১৫ জুন মামলার পরবর্তী শুনানি।

CBI মিথ্যে তথ্য দিয়েছে, দাবি লুথরার